মাল্টি নিশ(Multi Niche) বনাম সিঙ্গেল নিশ(Single Niche)। কোনটি ভাল এবং কেন? ২৪টেকি

মাল্টি নিশ(Multi Niche) বনাম সিঙ্গেল নিশ(Single Niche)। কোনটি ভাল এবং কেন? ২৪টেকি

আপনার সাইটটি কি মাল্টি নিশের নাকি সিঙ্গেল নিশের? নতুন ব্লগার হিসেবে সবার মনে একটি জিনিসই ঘুরপাক খায় যে শুরু করার পূর্বে সে-কি মাল্টি নিশ ব্লগ তৈরি করবে নাকি সিঙ্গেল নিশের ব্লগ তৈরি করবে। তাই এই পোস্টটি তাদের জন্যই তৈরি করা, যারা এই নিশ দুটির মধ্যে পার্থক্য খুঁজছেন এবং কোনটা ভালো সেটা জানতে চাচ্ছেন। আশা করি ভালো কিছু আপনাদের দিতে পারবো কিন্তু সেফুদার মত ম* খাইতে বলবো না বলে দিলুম দাদা। 😛  😛 

নিশ বলতে আসলে আমরা কি বুঝি?

এসইও এবং ব্লগিংয়ের ক্ষেত্রে আমরা যখন কোন একটি বিষয়কে টার্গেট করে কোন পোস্ট তৈরি করি তখন সেটাকে নিশ বলে আখ্যায়িত করি। সেটা হতে পারে একটি নির্দিষ্ট বিষয় অথবা হতে পারে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে। আসলে নিশ -কে আমরা টপিক(Topic) হিসেবেও বলতে পারি কিন্তু প্রফেশনাল ব্লগার অর্থাৎ আপনি যখন ব্লগিং ক্যারিয়ারে প্রবেশ করবেন তখন আপনাকে এই নিশ শব্দটির সাথে পরিচিত হতে হবে এবং এটাকে টপিকের সমর্থক হিসেবেই ব্যবহার করতে হবে। কারণ ব্লগিং জগতে এই নিশ শব্দটি অতীব প্রচলিত এবং সবচেয়ে ব্যবহৃত। তাই আপনি যদি নিশ এর পরিবর্তে টপিক শব্দটি ইউজ করেন তাহলে অনেকেই আপনাকে ভাবতে পারে, আপনি হয়ত গাইয়া ভূত, ব্লগিং এর জগতে একেবারেই নতুন। 🙄 
আচ্ছা এখন মূল কথায় আসা যাক, নিশ হচ্ছে কোন একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর তৈরি করা ব্লগ যেমন আমার সাইটটি মূলত টেকনোলজি এবং এসইও রিলেটেড। অনেকে আবার ভিন্ন ভিন্ন বিষয় নিয়ে ব্লগ তৈরি করে। নিশ হতে পারে শুধুমাত্র এসইও নিয়ে, টেকনোলজী নিয়ে, সাইন্স, প্রোগ্রামিং অথবা যে কোন নির্দিষ্ট বিষয় যেটা ব্লগ কর্তৃপক্ষর উপর নির্ভর করে।



যেমনঃ

১. checkmoz.com – এসইও এবং ডোমেইন ইনফরমেশন জানার জন্য বেস্ট

২. gsmarena.com -এন্ড্রোয়েড মোবাইলের তথ্য ভান্ডার। এমন আরো অনেক সাইট পাবেন যারা নির্দিষ্ট টপিক নিয়ে পোস্ট করে।

এখন ব্লগ শুরু করার আগে নিজেকে কিছু প্রশ্ন করুন

ব্লগিং শুরু করার আগে আপনি চিন্তা করুন আপনি কোন ধরনের ব্লগ রান করাতে চান? সিঙ্গেল নিশ নাকি মাল্টি নিশ? অনেক ব্লগার আছে যারা চিন্তা করে যে, তারা মাল্টি নিশের ব্লগ তৈরি করবে যাতে তারা প্রচুর পরিমাণে ট্রাফিক পায় এবং বেশি পরিমাণে উপার্জন করতে পারে। আবার অনেক ধরনের ব্লগার আছে যাদের প্যাশন একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর থাকে। যেমনঃ ফটোগ্রাফি, ফ্যাশন, টেকনোলজি, হেলথ, মিউজিক, লিরিক্স অথবা অন্যকিছু। যদি আপনার মুখ্য উদ্দেশ্য থাকে যে অ্যাডসেন্স থেকে আপনি উপার্জন করবেন অথবা অন্য কোন এড নেটওয়ার্ক থেকে ইনকাম করবেন তাহলে আমার মনে হয় সিঙ্গেল নিশ ব্লগ সবথেকে ভালো হবে, যদি আপনি কোয়ালিটি কনটেন্ট তৈরি করতে পারেন এবং এর মাধ্যমে আপনার রেপুটেশন ধরে রাখতে পারেন। আর যদি মনে করেন যে ইনকামটা আপনার মুখ্য উদ্দেশ্য নয় তাহলে আপনি একটি মাল্টি নিশ ব্লগ তৈরি করতে পারেন।

মাল্টি নিশ(Multi Niche) বনাম সিঙ্গেল নিশ(Single Niche)। কোনটি ভাল এবং কেন? ২৪টেকি
মাল্টি নিশ(Multi Niche) বনাম সিঙ্গেল নিশ(Single Niche)। কোনটি ভাল এবং কেন? ২৪টেকি

অনেকে হয়তো আমার কথাটির সাথে দ্বিমত পোষণ করতে পারেন কিন্তু আমার কথা বলার কারণটি আমার পুরো পোস্টটি পড়ুন তাহলে উত্তর পেয়ে যাবেন।

মাল্টি নিশ ব্লগ কেন এসইও, টাকা উপার্জন এবং রিডারদের জন্য ভালো না?

একটি মাল্টি নিশের ব্লগে আপনি ইচ্ছামত যা মন চায় তাই লিখতে পারেন বা মজা করতে পারেন। এমন অনেক মাল্টি নিশ ব্লগ আছে যারা অনলাইনে প্রচুর ইনকাম করছে। কিন্তু এটা আসলেই অনেক কঠিন কাজ। একটি মাল্টি নিশ ব্লগ তৈরি করতে গেলে আপনাকে সিঙ্গেল নিশ থেকে প্রচুর পরিমাণে বেশি পরিশ্রম করতে হবে। ইন্টারনেট দুনিয়ার পরিসর এত পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়ে গেছে যে ব্লগিংয়ের মাধ্যমেও সাইটকে র‍্যাঙ্ক করানো এবং এর মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করা অনেক কঠিন হয়ে পড়েছে। মাল্টি নিশ ব্লগের কিছু খারাপ দিক নিচে ব্যাখ্যা করা হলোঃ

মাল্টি নিশ ব্লগের জন্য এসইও করাটা/ এসইওর সুবিধা পাওয়াটা অনেক দুরূহ ব্যাপার

একটি ব্লগকে রান করানো অথবা গুগলের প্রথম পেজে নিয়ে আসার জন্য এসইও বা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এটা আমরা সবাই জানি। সম্প্রতি গুগলের অ্যালগোরিদমে অনেক পরিবর্তন এসেছে যেটাতে মাল্টি নিশের ব্লগ থেকে সিঙ্গেল নিশের ব্লগ গুলোকে বেশি ফোকাস করা হয়েছে। SERPs তে সার্চ রেজাল্ট শো করানোর ক্ষেত্রে গুগলের র‍্যাঙ্ক ব্রেইন(Rank Brain) মুখ্য ভুমিকা পালন করে। এই আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স(AI) ব্যবহার করে গুগলের র‍্যাঙ্ক ব্রেইন নির্ধারণ করে সার্চ রেজাল্টে কোন তথ্য কিভাবে প্রদর্শিত হবে এবং এসইও রিলেটেড তথ্য কিভাবে সাজানো হবে। উদাহরণ দিয়ে আমি আর একটু সহজ করে দেই। মনে করুন আপনি গুগলে সার্চ দিলেন 2018 সেরা এন্ড্রয়েড ফোন। তাহলে গুগল কি করবে? গুগল করবে যেই সাইটগুলো মুলত এন্ড্রয়েড এর উপর ভিত্তি করেই তৈরি করা সে সকল সাইটগুলোকে গুগলের প্রথম পেজে এবং সবার উপরে শো করবে। এই ক্ষেত্রে গুগল সিঙ্গেল নিশ সাইটগুলোকে অগ্রাধিকার দিবে। অর্গানিক সার্চে, গুগল সার্চ রেজাল্টে মাল্টি নিশ থেকে সিংগেল নিশ বেশি উপরে থাকবে। গুগলের SERP(search engine results pages) এর প্রথম পৃষ্ঠায় প্রদর্শিত ফলাফল গুলির জন্য অন্য কিছু ফ্যাক্টর কাজ করে। সেগুলো হচ্ছে ডোমেইন অথরিটি(DA), পেজ অথরিটি(PA) এবং কন্টেন্ট এর মান কেমন সেটার উপর। একটা জিনিস খেয়াল করবেন যে অনেকগুলো পোস্ট থাকা সত্ত্বেও মাল্টি নিশ ব্লগ গুলোর ডোমেইন অথরিটি অনেক কম থাকে কিন্তু কিছু পরিমাণ পোস্ট দিয়ে একটি সিঙ্গেল নিশ সাইটের ডোমেইন অথরিটি মাল্টি নিশ থেকে অনেক বেশি থাকে।

মাল্টি নিশ ব্লগে অডিয়েন্স অথবা রিডারকে লক্ষ্য(Target) করা খুব কঠিন

একজন ব্লগার কিন্তু কিছু নির্দিষ্ট শ্রেণির শ্রোতাদের জন্য তার পোস্টগুলো লেখে। আপনি যদি শ্রোতা লক্ষ্য করে কাজ না করেন তাহলে শ্রোতা, অডিয়েন্স সবই হারাবেন। আপনি যদি একটি মাল্টি নিশ ব্লগ তৈরি করেন তাহলে শ্রোতাদেরকে ধরে রাখার জন্য একটি টিম তৈরি করুন। যাদের কাজ থাকবে কোন একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপরে নিয়মিত পোস্ট করা। মানুষ যখন কোন একটি সিঙ্গেল নিশের ব্লগে যাবে এবং কোয়ালিটি কনটেন্ট দেখতে পাবে তখন সে কিন্তু সেই সাইটটিতে সাবস্ক্রাইব করবে। কারণ সে বুঝবে এই সাইটটিতে গেলে আমি এই সম্বন্ধে সকল ধরনের ইনফর্মেশন একসাথে পাব। তাই কখনও কখনও মাল্টি নিশ সাইটগুলোতে সাবস্ক্রাইবার পাওয়া অনেক কঠিন বিষয় হয়ে দাঁড়ায়, যেখানে সিঙ্গেল নিশের সাইটগুলো তাদের টার্গেট অডিয়েন্সকে সহজেই ধরতে পারে।




অর্থ উপার্জন

একটি কমন প্রশ্ন, যেটা সকল নতুন ব্লগারের মনে আসে যে, মাল্টি নিশ ব্লগ থেকে বেশি উপার্জন করতে পারবো নাকি সিঙ্গেল নিশ ব্লগ থেকে বেশি ইনকাম করতে পারব? আপনার ব্লগ থেকে কি পরিমান ইনকাম করবেন সেটা সরাসরি সমানুপাতিক ট্রাফিক এবং আপনার ব্লগের কোয়ালিটির উপর। তাই মাল্টি নিশ থেকে সিঙ্গেল নিশের ব্লগাররা সুবিধা বেশি পাবে। আপনি হয়তো ভাবছেন যে, একজন ব্যাক্তি মাল্টি নিশ নিয়ে কাজ করে তার মানে তার সাইটে বিভিন্ন ধরনের ইনফরমেশন আছে এবং এর জন্য সে বেশি পরিমাণে ট্রাফিক পাবে এবং তার ইনকাম বেশি হবে কিন্তু আসলে এমনটি নয়। এটা আমি উপরে ব্যাখ্যা করেছি যে, যখন একজন ইউজার কোন একটি বিষয় নিয়ে গুগলে সার্চ করবে তখন সে ওই রিলেটেড সাইটগুলোতে প্রবেশ করবে সবার প্রথমে। কারণ সে প্রথম অবস্থায় ভেবে নিবে যেহেতু এই সাইটটি এই নির্দিষ্ট বিষয়ের উপরে লেখা তাই এখান থেকে আমি বেশি সাহায্য পাবো। আশা করি বুঝতে পেরে গেছেন।

আবার ধরুন, আপনি এমন একটি কোম্পানিতে কাজ করেন যারা একটি ক্যামেরা তৈরি করেছে এবং আপনার কাছে সীমিত বিজ্ঞাপনের বাজেট রয়েছে। আপনি বিভিন্ন সাইটের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন প্রচার করার পরিকল্পনা করছেন এবং আপনার জানামতে দুটি সাইট রয়েছে যেখানে আপনি বিজ্ঞাপনে স্থাপন করার বিষয়ে বিবেচনা করছেনঃ
ব্লগ ১: এই ব্লগটি প্রতি মাসে ১০০০০ পৃষ্ঠা দর্শন পায় এবং ব্লগটিতে আসা সমস্ত ট্র্যাফিক ফটোগ্রাফি এবং ক্যামেরা সম্পর্কিত বিষয়ের জন্য।
ব্লগ ২: এই ব্লগটি প্রতি মাসে ৫০০০০ পৃষ্ঠা দর্শন পায় এবং ব্লগটিতে আসা সমস্ত ট্র্যাফিক ফটোগ্রাফি, কুকুর যত্ন, শিশুর যত্ন, ব্লগিং টিপস, ফিটনেস, মেকআপ এবং আরও অনেক কিছু সহ বিভিন্ন বিষয়ের জন্য ট্র্যাফিক আসছে।
এই দুটি ব্লগের কোনটি আপনার পণ্য বিজ্ঞাপনের জন্য আদর্শ হবে? সম্ভবত ব্লগ ১। কারণ আপনি ব্লগ ১ থেকে লক্ষ্যযুক্ত ট্র্যাফিক পাবেন, যেখানে ব্লগ ২ থেকে যে ট্র্যাফিক আসবে তা আপনার পণ্যের সাথে প্রাসঙ্গিক নাও হতে পারে।

এখন কি ভাবছেন? কোন নিশটি আপনার জন্য ভালো হবে বলুন তো?

সিঙ্গেল নিশ ব্লগ অবশ্যই বেশি পরিমাণ ইনকাম করবে কারণ এর ট্রাফিকগুলো টার্গেটেড (অর্থাৎ গুগল সার্চ থেকে আসবে)। আর মাল্টি নিস সাইটে যদি এর থেকেও বেশি ট্রাফিক আসে তাহলে সেগুলো কম ইনকাম করবে কারণ সেগুলো টার্গেট ট্রাফিক না (অর্থাৎ গুগল সার্চ থেকে আসতেছে না)। কারণ দেখা গেল দর্শক আপনার সাইটের নাম জানে এবং সেই নাম দিয়েই আপনার পোস্টগুলো দেখতেছে। তবে মনে রাখবেন সিংগেল নিশ হলেই হবে না, DA,PA,Content,SEO এগুলোও বড় ফ্যাক্টর। দুইটা সাইটের মধ্যে(সিঙ্গেল ও মাল্টি নিশ) যদি এই ফ্যাক্টর গুলোর পার্থক্য কাছাকাছি থাকে তাহলে অবশ্যই সিঙ্গেল নিশ সাইট বেশি সুবিধা পাবে।

আপনার ব্লগে কোন ধরনের স্পেসিফিক টপিক নিয়ে লিখতে চান সেটা আর কিভাবে নির্ধারণ করবেন?

এসইও এক্সপার্ট এবং ব্লগার এক্সপার্ট যারা আছে তাদের ভাষ্যমতে আপনার যে বিষয়টি সম্বন্ধে জানতে বেশি ভালো লাগে এবং যে জিনিসটির প্রতি আপনার আগ্রহ বেশি সে জিনিসটি নিয়ে লিখুন। কারণ এটি দিয়ে আপনি দর্শককে আকৃষ্ট করতে পারবেন, আপনার অনুভূতি, অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারবেন। তাই বেশি চিন্তাভাবনা না করে আপনার যে বিষয়টি সবথেকে বেশি ভালো লাগে বা জানতে আগ্রহ বেশি সেই বিষয় নিয়ে লেখা শুরু করে দিন।

আমার মতামত
আপনি যদি ব্লগিং জগতে একেবারেই নতুন হয়ে থাকেন এবং এসইও, ব্লগিং এর মৌলিক বিষয় না জানেন তাহলে আমার পরামর্শ হবে যে, আপনি ব্লগারে আপনার ব্লগটি তৈরি করুন। এর জন্য আলাদাভাবে আপনাকে কোন আর টাকা খরচ করতে হবে না। আমার এসইও রিলেটেড পোস্টগুলো দেখতে পারেন এবং ব্লগিং যখন করতে থাকবেন তখন আপনিও অনেক কিছুর সাথে পরিচিত হবেন এবং জানতে পারবেন ব্লগিং সম্বন্ধে। যদি আপনি ভালো পরিমাণ উপার্জন করতে চান তাহলে সিঙ্গেল নিশ ব্লগ দিয়ে শুরু করুন। কারন মাল্টি নিশ ব্লগ একটি বোঝা এবং মেইনটেন করা অনেক ঝামেলার যদি না লোকবল অনেক থাকে। এখন ভাল মত চিন্তা করুন এবং আমাকে জানান আপনি কোন ধরনের ব্লগ করতে ইচ্ছুক?

আরো দেখতে পারেনঃ

নতুনদের জন্য সম্পূর্ণ এসইও গাইড

গুগল এডসেন্সে এপ্লাই করার পূর্বে আপনাকে ওয়েবসাইটের কনটেন্ট সম্বন্ধে যেসব বিষয়গুলো মনে রাখতে হবে. 

নতুনদের জন্য কিছু ব্লগিং টিপস এবং ট্রিকস(যা সবার জানা উচিত)।

Spread the love

Related posts

Leave a Comment